ত্বকের লাবন্য ধরে রাখতে ঘরোয়া ফেসিয়ালের টিপস

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আমাদের কর্ম পরিধি ব্যস্ততা বেড়েই চলেছে। বিশেষ করে আজকাল মেয়েদের লেখাপড়া সাথে সাথে কর্মক্ষেত্রেও অনেক ব্যস্ত সময় কাটান। যার ফলে তারা তাদের স্কিনের প্রতি নজর রাখার জন্য আলাদা সময় পান না। কিন্তু সুন্দর ত্বক প্রতিটি মেয়ের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু সত্যিকার অর্থে তাদের পক্ষে ত্বকের যত্ন নেওয়ার অতিরিক্ত সময়টুকু বের করা অনেক কঠিন হয়ে পরে। প্রতি ১৫ দিনে একবার সম্ভব না হলে মাসে অন্তত একবার স্কিনকে ভালো রাখতে ফেসিয়াল করা প্রয়োজন। যথাযথ সময়ের অভাবে অনেকেরই বিউটি পার্লারে যেয়ে ফেসিয়াল করা হয় না। তাই কর্ম ব্যস্ত নারীরা চাইলে ঘরে বসে থেকেই নিজে নিজে ফেসিয়াল করে তাদের স্কিনের লাবন্য ধরে রাখতে পারেন।

কেন দরকার ফেসিয়ালঃ

প্রতিদিন ফেসিয়াল করার ফলে আপনার মুখের ত্বক হবে সুন্দর ও আকর্ষণীয়  এবং মুখের রক্ত চলাচল স্বাভাবিক হয়। তবে মনে রাখা উচিত ঘরোয়া ফেসিয়াল ব্যবহার করাই ভালো।

উপকরণঃ

ফেসিয়ালের করবার জন্য প্রয়োজনীয়  গুরুত্বপূর্ণ উপকরণ গুলোর কিছু হলো নিকন টনিক, লোশন, ক্রিম, বস্ন্যাক হেড রিমুভার, গোলাপ জল এবং হেয়ার ব্যান্ড।

প্রক্রিয়াটি যেভাবে করবেনঃ

  •  প্রথমে হাত সাবান দিয়ে ভালো করে পরিষ্কার করে নিবেন।
  • এবার বিছানায় অথবা হেলানো চেয়ারে আরাম করে শুয়ে মাথাটা পেছন দিকে দিয়ে হেলিয়ে নিয়ে চুলগুলো হেয়ার ব্যান্ড দিয়ে বেঁধে দিবেন।
  •   দুই টুকরো তুলা ঠান্ডা পানিতে ভিজিয়ে আলতো ভাবে চোখের ওপর লাগিয়ে চোখ দুটি ঢেকে নিবেন ।
  •  ক্লিনজিং মিল্ক তুলার সাহায্যে আলতো ভাবে  মুখে মাখিয়ে পুরো মুখ ধুয়ে নিবেন।
  •  এরপর অল্প অল্প করে ক্রিম হাতে লাগিয়ে আঙুল দিয়ে ভালো ভাবে আস্তে আস্তে ম্যাসেজ করবেন।
  •  স্কিন তৈলাক্ত হলে লেমন ক্রিম আর যদি শুকনো হয় তাহলে কোর্ল্ডক্রিম ব্যবহার করবেন।
  • ব্রণ যদি থাকে তাহলে সাবধানে ব্রণের জায়গাগুলো বাদ রেখে আলতো ভাবে ম্যাসাজ করুন।
  • ম্যাসাজ শুরু করবেন ঘাড় থেকে । ধীরে ধীরে ম্যাসাজ করবেন, স্কিনে বেশি চাপ না দিয়ে। হাত দুইটা এক সমান রেখে মুখের চারিপাশে ম্যাসাজ করতে থাকুন।  ১০ থেকে ২০ মিনিট ধরে এটি করতে থাকবেন।
  • এই অবস্থায় ৫ মিনিট রেখে দিন, ম্যাসাজ করা শেষ হলে ।
  • তারপর এক টুকরা পরিষ্কার কাপড় বা তুলা দ্বারা মুখটি পরিষ্কার করে মুছে নিবেন।
  • যদি  তৈলাক্ত ত্বক হয় তাহলে মুখ মুছে ফেলার পর ত্বকে টনিক দিয়ে ম্যাসেজ করে নিবেন।

ট্রিটমেন্ট ফেসিয়ালঃ

এই ফেসিয়ালে ব্যবহৃত উপকরণগুলো বড় বড় প্রসাধনীর দোকানে পাওয়া যায়। তবে এ ফেসিয়াল করার সময় একটু বেশি যত্নবান হতে হবে। এতে ব্যবহারিত উপকরনের উপাদান সম্পর্কে আগে ভালো ভাবে যেনে নিতে হবে।

উপকরণঃ

ট্রিটমেন্ট ফেসিয়ালের জন্য যা যা  দরকার তা হল ক্লিনজিং ক্রিম,টিস্যু পেপার বা তুলা,হারবালের শসা প্যাক, হারবাল অ্যাপ্রিকোট ক্রিম, ক্লিনিজং মিল্ক ম্যাসাজ ক্রিম,  স্টিম বা বাষ্প (পানি গরম করে তার ভাপ),প্যাক লাগানোর ব্রাশ, এবং  ব্রণ স্টিক ।

প্রক্রিয়াটি যেভাবে করবেনঃ

প্রথমে ক্লিনজিং মিল্ক দিয়ে মুখটা ম্যাসাজ করুন। ম্যাসাজ শুরু করতে হবে থুঁতনি থেকে। তারপর নাকের নিচটা এভাবে চোখের নিচে এবং উপরে। এভাবে গালের ওপর কমপক্ষে দশবার।

  • ম্যাসাজ করার পর ক্লিনজিং মিল্ক লাগিয়ে পরিষ্কার করুন।
  • এরপর অ্যাপ্রিকোট ফ্রেশ ক্রিম দিয়ে আবার ম্যাসাজ করুন একই নিয়মে। ৫ মিনিট অপেক্ষা করুন।
  • এরপর মুখে গরম পানির ভাপ দিন। গরম পানি পাতিলে করে নেবেন।
  • সুতা চার ভাঁজ করে ক্রিমগুলো কেঁচে উঠিয়ে নিন।
  • এরপর হারবালের শসা প্যাক তৈরি করে মুখে লাগিয়ে অপেক্ষা করুন ৩০ মিনিট।
  • তারপর মুখ পরিষ্কার করে টিস্যু দিয়ে মুছে স্কিন টনিক দিয়ে হালকা ম্যাসাজ করে সম্পন্ন করুন ফেসিয়াল পর্ব।

এভাবে ঘরোয়া ফেসিয়াল এর মাধ্যমে আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা ও লাবন্যতা ধরে রাখুন বহুদিন। নিয়মিত ফেসিয়ালকরলে যাদের মুখে ব্রণের প্রবণতা আছে তা কমে যাবে।

রূপচর্চা, দৈনন্দিন জীবন, রান্না, স্বাস্থ্য সহ মেয়েদের সকল বিষয়ে নিয়মিত টিপস পেতে টিপস ওয়ার্ল্ডের সাথেই থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.